বাংলাদেশে কোন কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায়

আমরা সবাই তো বিনোদনের জন্য গেম খেলি। গেম খেলে আবার টাকা আয় করা যায় নাকি? গেম খেলে আবার মানুষ টাকা ইনকামও করতে পারেন নাকি? অবাক করার মত কথা হলেও আমাদের দেশের এবং বাইরের দেশের অনেকেই শুধুমাত্র মোবাইল দিয়ে গেম খেলে টাকা ইনকাম করছে। তাই আমি আজকে আপনাদের সাথে আলোচনা করব বাংলাদেশে কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায়।

 হয়তো আপনি লক্ষ্য করেছেন যে আমাদের দেশে পাড়ায় পাড়ায় অনেকেই একসাথে গেম খেলে। যা কয়েক বছর আগেও কিছুটা অন্যরকম মনে হতো। এখন যা একদম নরমাল একটি বিষয়। অনেকেই আবার এই গেম খেলে টাকা ইনকাম করছে যা আমাদেরকে অবাক করার মত একটি বিষয়। কিন্তু এটা সত্যি যে যদি আপনিও চান তাহলে গেম খেলে অবশ্যই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তাহলে আর বেশি দেরি না করে চলুন দেখে নেই বাংলাদেশে কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায়।

কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায়

এখানে আমরা আপনাদেরকে বলতে  যাচ্ছি যে কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায়। আপনি  এটি একেবারে বিনামূল্যে খেলে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। অর্থাৎ এই গেম গুলো খেলে অর্থ উপার্জন করতে আপনাকে কোন ধরনের বিনিয়োগ করতে হবে না। আমাদের যারা জিজ্ঞেস  করেন কিভাবে টাকা ইনভেস্ট না করে গেম খেলে টাকা আয় করা যায়। সেইসব লোকদেরকে এখানে নজর দেওয়া দরকার। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যায়।

Winzo Game

আমরা প্রথমত আমাদেরকে বলে রাখি যে  Winzo Game হলো ভারতের সবচেয়ে বড় গেমিং অ্যাপ। আপনি যেখানে লুডু গেম থেকে টাকা উপার্জন      বাবল শুটার গেম খেলতে পারেন। জেনে আপনি অবাক হবেন যে Winzo গেমটি এখন পর্যন্ত প্রায় 200 কোটি টাকা দিয়েছে। যেহেতু Winzo  একটি জেনুইন এপ্স, আপনাকে যা গেম খেলার জন্য প্রকৃত অর্থ প্রদান করে। আমরা তাই এই অর্থ  উপার্জনকারী গেম এর তালিকায় Winzo গেমটিকে  ১ নম্বরে রেখেছি। যদিও এই অ্যাপটি আপনাকে গেম খেলার বিনিময় টাকা দেয়, আপনি তবু প্লে স্টোরে Winzo  পাবেন না। কারণ গুগল প্লে স্টোর তার প্লাটফর্মে  এমন ভাবে অ্যাপ রাখে না। যা আপনাকে গেম খেলার বদলে টাকা দেয়।

Winzo Game  থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

আসুন এখন তাহলে আপনাদেরকে বলি Winzo  গেম এর মাধ্যমে আপনি কি কি উপায়ে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। আমরা এখানে  আপনাদেরকে সীমিত সংখ্যক  শব্দে বলবো কিভাবে আপনি Winzo গেম খেলে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। আপনি যদি এটি সম্পর্কে জানেন এবং এটি সম্পর্কে আপনি যদি জানতে চান তাহলে আমার  মনে হয় সম্পূর্ণ তথ্য আপনাদেরকে আমাদের  এই পোস্টটি করা উচিত। আমরা এখানে আপনাদেরকে বলছি যে Winzo  গেম থেকে  প্রধানত দুটি উপায়ে অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

1. গেম খেলে অর্থ উপার্জন করুন

Winzo-  তে আপনি স্পেস ওয়ারিওয়র, ফ্রী ফায়ার, মেমোরি মেনিয়া, ক্রিকেট  কেরাম, ক্রেজি কুইজ, বাবল শুটারের মতো ২০০+ জনপ্রিয় গেম খেলার সুবিধা পাবেন। আপনি খেলে  উইনজো  করতে পারেন এই গেমগুলি। আপনি প্রতিদিন সহজেই 500  টাকা থেকে শুরু করে 1500 টাকা পর্যন্ত এই অ্যাপটি থেকে টাকা আয় করে দিতে  পারবেন।

2. রেফার করে অর্থ উপার্জন করুন

Winzo  গেমে আপনি রেফার এবং আর্ন  এর বিকল্পও পাবেন। আপনাকে যেখানে আপনার winzo  গেমের রেফার লিংক অন্য লোকদের সাথে শেয়ার করতে হবে। তারপরে অন্য কেউ যখন আপনার রেফার লিংক থেকে winzo গেম ডাউনলোড করে। আপনি যদি তা করেন তাহলে আপনি winzo  গেম থেকে মোট s100  পাবেন। আপনি যা UPI এর মাধ্যমে আপনার ব্যাংক একাউন্টে চাইতে পারেন।

Dream 11

Dream 11 এমনই একটি অর্থ উপার্জনের গেম। আপনি যেটিতে একটি ম্যাচ চলাকালীন আপনারা দল তৈরি করে একসাথে কোটি কোটি টাকা আয় করতে  পারবেন। যদি আপনি প্রথমে Dream 11 অ্যাপ সম্পর্কে বেশি কিছু জানেন না তাহলে আসুন আমরা আপনাদেরকে বলি যে Dream 11 সম্পর্কে।  ড্রিম ১১ একটি ফ্যান্টাসি এপ্লিকেশন। নিজে এখানে ক্রিকেট, ফুটবল, কাবাডি, কফি ইত্যাদির মতো অনেক ম্যাচে প্রতিযোগিতা খেলার সুযোগ  পাবেন। ড্রিম ১১- এ প্রতিযোগিতা খেলতে আপনাকে একটি ফ্যান্টাসি দল তৈরি করতে হবে।

Dream 11  এ একটি দল তৈরি করার সময় আপনাকে খেলোয়াড় নির্বাচন করতে হবে। এই খেলোয়াড়দেরকে আমরা Dream 11- এর ভার্চুয়াল প্লেয়ারও বলি। আপনার যদি নির্বাচিত খেলোয়াররা রিয়েল ম্যাচে ভালো খেলে তাহলে আপনার ভার্চুয়াল খেলোয়ারদেরকে রেংকিং বাড়বে। এর পরিবর্তে আপনার নির্বাচিত খেলোয়াড়রা যদি রিয়েল ম্যাচে খারাপ খেলে তাহলে  আপনার ড্রিম ১১ এ নির্বাচিত ভার্চুয়াল প্লেয়ারদের রেংকিং কমে যাবে।

Dream 11  থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

Dream 11-  এ আপনি প্রধানত দুটি উপায়ে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। এটি থেকে অর্থ উপার্জনের প্রথম উপায় হল, আপনি জানেন যে ড্রিম ১১ এ সব সময় অনেক প্রতিযোগিতা থাকে।এতে নিজের একটা টিম বানাতে হবে,  টিম বানানোর পর আপনার সিলেক্ট করা টিম যদি সত্যিকারে ম্যাচে ভালো খেলে তাহলে আপনার  র‍্যাঙ্ক বেড়ে যায়, আপনি যাতে Dream 11 থেকে টাকা আয় করতে পারেন। ড্রিম ১১ থেকে অর্থ উপার্জনের দ্বিতীয় উপায় হল রেফার এবং   আর্ন। আপনাকে যেখানে আপনার ড্রিম ১১ অন্য ব্যক্তির কাছে রেফার করতে হবে। তারপরে যখনই সেই ব্যক্তি  Dream 11 এ কোন প্রতিযোগিতায় খেলবে আপনাকে তাই রেফার করার বিনিময়ে ড্রিম ১১ মোট S 551  দেবে। আপনি যা Paytm, Upi ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ইত্যাদির মাধ্যমে সরাসরি আপনার ব্যাংক একাউন্টে চাইতে  পারেন।

Zupee

Zupee  হল ভারতের অন্যতম বৃহত্তম গেমিং অ্যাপ। আপনি এখানে অনেক ধরনের স্কিল ভিত্তিক গেম পাবেন আপনি যা খেলে রিয়েল Paytm  ক্যাশ উপার্জন করতে পারবেন। আপনি এখানে Zupee Ludu, Ludu Supreme, Ludo Ninja  এবং snakes  এর মত অনেক জনপ্রিয় গেম খেলে অর্থ উপার্জন করার বিকল্প পাবেন। যাই হোক যদি আপনি দীর্ঘদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে সক্রিয় থাকেন বা আপনি দীর্ঘ সময় ধরে টিভি দেখেন, তবে আপনি সম্ভবত Zupee অ্যাপ এর বিজ্ঞাপনটি দেখেছেন। যেখানে বলিউডলি অভিনেতা রীতেশ দেশমুখ বর্তমানে ঔষধ করেন। Zupee-  এ  গেম খেলে লক্ষ লক্ষ নগদ পুরস্কার আপনি জিততে পারেন।

যা অনেকাংশে সত্য কিন্তু Zupee  অ্যাপ থেকে লক্ষ লক্ষ নগদ পুরস্কার অর্জন করতে আপনাকে আপনার মনের সম্পূর্ণ ব্যবহার করে Zupee  গেম খেলতে হবে। আর এমনটা নয় যে এখন থেকে আপনি 10 মিনিটের মধ্যে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। কিন্তু লাখ টাকা ইনকাম করতে আপনার অন্তত দুই মাসের মত সময় লাগবে। এবং আপনি যেমন জানেন যে যদি আপনি Zupee- এ যেকোনো গেম খেলে আরও বেশি অর্থ উপার্জন করতে চান তবে এর জন্য আপনাকে Zupee  অ্যাপে কিছু অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে। আপনাকে আমরা আরও বিস্তারিতভাবে  এটির সম্পর্কে বলবো।

Zupee  থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

যেমনটি আমরা  আপনাকে উপরে বলেছি যে Zupee  এর থেকে অর্থ উপার্জন করতে আপনাকে এতে উপরের গেমগুলো খেলতে হবে। তাও তার মনকে ১০০% ব্যবহার করে। কারণ যখন আপনি প্রথমবার Zupee  অ্যাপ ডাউনলোড করে আপনার একাউন্ট তৈরি করবেন সেই সময়ে আপনি Zupee  অ্যাপ থেকে ১০ টাকার সাইন আপ বোনাস পেয়ে যাবেন।  আপনি Zupee  অ্যাপে উপস্থিত যেকোনো গেমের এন্ট্রি ফ্রি প্রদান করতে এই প্রাপ্ত ১০ টাকা ব্যবহার করতে পারবেন। কিন্তু যদি আপনি বোনাসের প্রাপ্ত দশ টাকা প্রয়োগ করে একটি গেম খেলেন এবং আপনি যদি গেমটি  জিতেন আপনি সেখানে  ১৫ বা ১৭ টাকা পাবেন।

কিন্তু আপনি যদি গেমটি হেরে যান তাহলে আপনি আপনার বাজি ১০ হারাবেন। তারপরে আপনি যদি আবার কোন গেম খেলতে চান তবে আপনাকে প্রথমে Zupee  এ টাকা জমা করতে হবে UPI  অ্যাপের সাহায্যে ওয়ালেট। সামগ্রিকভাবে যদি আপনি Zupee  অ্যাপ থেকে অর্থ উপার্জন করতে চান আপনাকে তাহলে আপনার পক্ষ থেকে কিছু টাকা খরচ করে টুর্নামেন্টে যোগ দিতে হবে। তারপরে যদি আপনি গেমটি জিতেন তবে আপনি অর্থ জিতবেন। কিন্তু যদি আপনি গেমটি হেরে যান তবে আপনি আপনার অর্থও হারাবেন। তাই যদি আপনি গেমটি ভালো খেলেন তবে আপনি Zupee  জিততে পারবেন।

Rush Game  থেকে টাকা ইনকাম

বর্তমানে Rush Game  মানুষের মধ্যে খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কারণ এই গেমটিতে লোকেরা আরামে বসে খেয়ে গেমটি খেলতে পারে। এতে আপনি লুডু, কেরাম বোর্ড, গেম স্নেক খেলে টাকা আয় করতে পারেন। এবং আপনি আপনার সময়ও পাস করতে পারবেন। Rush Game  এ টাইম পাসের পাশাপাশি আপনিও এখান থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এই গেমটিতে আপনি সাইন আপ করার সাথে সাথে Rush Games  থেকে  সাইন আপ বুনাস হিসেবে ৫০ টাকার মত পাবেন। Rush Game   খেলে জিতে টাকা আপনি যেকোনো সময় সরাসরি ড্রাইভিং একাউন্টে এক ক্লিকে ট্রান্সফার করতে পারেন। আশা করি আপনারা তাহলে বুঝতে পেরেছেন কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে গেম খেলে টাকা ইনকাম করা যায়।

GTA 5 গেম খেলে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম

 এক সময় জিটিএ ৫ কে সকল গেমের রাজা বলা হতো। বিশেষ করে ছোটবেলা থেকেই অনেকেই জিটিএ ফাইভ গেমটি খেলতে  অভ্যস্ত ছিল। এখনো পর্যন্ত অনলাইন জগতের অন্যতম আরো একটি জনপ্রিয় গেম হচ্ছে এই জিটিএ ফাইভ। এ গেমের গেমিং ভিডিও গুলো বর্তমানে সবচেয়ে বেশি  ভিউ দিতে সক্ষম হয়ে থাকে। আপনারা চাইলে এই গেমের গেমিং ভিডিও গুলো তৈরি করে ইউটিউবিং করতে  পারেন অথবা ফেসবুক পেজের মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই একটি ভালো পিসির ব্যবহার করতে হবে।

কেননা মোবাইল থেকে পিসি গুলোতে সবচেয়ে বেশি জিটিএ ফাইভ গেমটি চলে থাকে। তাই এক্ষেত্রে আপনার ইনকাম করার আগে কিছু বের করতে হবে এবং নানা ধরনের সমস্যা  হতেও পারে। তবে মনে রাখবেন আপনি যদি আয় শুরু করে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি ব্যয় করতে অভ্যস্ত হবেন। কিন্তু যদি আপনার কোন আয় না থাকে তাহলে শুরুতেই আপনি কোন কিছুতে সফলতা নাও পেতে পারেন।

Ballebaazi গেম খেলে টাকা আয় করুন

Ballebaazi ব্যাটিং একটা  ফ্যান্টাসি গেম। এখানে মানুষ থ্রি লাইক ড্রিম ১১ টাকা জিতেছে, যদিও পুরো সিস্টেমটাই ড্রিম ১১ এর মত। কিন্তু বর্তমান সময়ে ড্রিম ১১ এ এক্স নিয়ে অনেক বেশি প্রতিযোগিতা বেড়ে গেছে। যার কারণে মানুষ যতটা সমস্যা হয় পড়েছে। কিন্তু Ballebaazi তে ব্যাটিংয়ের ক্ষেত্রেও ড্রিম- 11 এর মত একই কাজ করুন, এখানে লোক কম খেলে যার কারণে আপনার জেতার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। যদি আপনি Ballebaazi  একটি দল তৈরি করে এবং আপনার দলটি যদি সঠিক হয় তাহলে আপনি ব্যাটিং করে জিততে পারবেন না। কারণ এখানে লোক কম তাই আপনার বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

 বাংলাদেশে কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায়

আমাদের দেশে অনেক মোবাইল গেম এবং কম্পিউটার গেম রয়েছে আপনি যা খেলতে পারবেন। কিন্তু সব গেম খেলে টাকা ইনকাম করা যায় না। বাংলাদেশে কোন গেম খেলে টাকা আয় করা যায় তার একটি লিস্ট পাবেন নিচে। উল্লেখ করে দেওয়া মোবাইল  গেমগুলো খেলে আমাদের দেশের  অনেকেই টাকা উপার্জন করছে প্রতিনিয়ত। আজকে থেকে আপনিও এই গেম গুলো খেলে টাকা উপার্জন করা শুরু করে দিতে পারেন। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক সেই গেমগুলো।

1. ফ্রি ফায়ার।
2. পাবজি মোবাইল।
3.  ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস।
4. কল অফ ডিউটি।
5. GTA Vice City.

উপরে উল্লেখ করে দেওয়া গেমগুলো ছাড়াও আরো অনেক গেম রয়েছে যেগুলি খেলে আপনারা টাকা উপার্জন করতে পারবেন। কিন্তু আমি  যেসব  গেমের নাম উল্লেখ করে দিয়েছি এর মাঝে মোবাইল গেম এবং কম্পিউটারে গেম রয়েছে। আপনি এই গেমগুলো খেলে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

গেম খেলে টাকা আয় করার উপায়

মোবাইল গেম কম্পিউটার গেমসহ আরো অনেকে গেম রয়েছে যা আমরা সাধারণত বিনোদন এর জন্য খেলে থাকি। ছোট বাচ্চারা তাদের সময় পার করার জন্য বিনোদনের জন্য মোবাইল গেম এবং কম্পিউটার গেম খেলে থাকে। কিন্তু অনেকেই গেম খেলে টাকা ইনকাম করার উপায় বের করে ফেলেছে ইতিমধ্যে। আপনার হাতে যদি একটি মোবাইল থাকে কিংবা একটি কম্পিউটার/ ল্যাপটপ থাকে তবে সেটি দিয়ে আপনি গেম খেলে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। গেম খেলে টাকা ইনকাম করার ব্যাপারটি অনেকের কাছে নতুন। তবে যদি আপনি গেম কে প্রফেশনালি হিসেবে নিতে পারেন তাহলে এই গেম খেলে আপনি লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন। মোবাইল গেম বা কম্পিউটার গেম খেলে টাকা ইনকাম করার উপায় জেনে নেওয়া যাক।

1. স্টিমিং করে টাকা ইনকাম।
2. টুর্নামেন্ট থেকে টাকা ইনকাম।
3. স্পন্সর থেকে টাকা ইনকাম।
4 গেম অ্যাকাউন্ট বিক্রি করে টাকা ইনকাম।

যদি আপনার একটি গেম অ্যাকাউন্ট থাকে কিংবা না থাকলে এখনি বানিয়ে নিতে পারবেন। এরপর আপনার মোবাইল  কিংবা কম্পিউটার দিয়ে উপরে উল্লেখ করে দেওয়া পদ্ধতি গুলো অনুসরণ করে অনেক সহজেই শুধু গেম খেলেই টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

সবচেয়ে কম সময়ে বেশি টাকা কোন গেম খেলে ইনকাম করা যায়

খুব অল্প সময়ের মধ্যে আপনি যদি বেশি টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে আপনাকে মূলত পিসি  গেমগুলো কে  বেছে নিতে হবে। কেননা সেখানে ইউজারের সংখ্যা বেশি প্রফেশনাল গেমারের সংখ্যাও অনেক বেশি। তাই স্বাভাবিক ভাবে তাদের তৈরি করার টুর্নামেন্ট বা স্থায়ী কোন কম্পিটিশন  কনটেস্ট এর পার্টিসিপেন্ট ও প্রাইস মানিও পরিমাণে বেশি থাকবে এটাই স্বাভাবিক। আপনি জানলে অবাক হবেন  বাইরের এমন অনেক দেশ রয়েছে যেখানে গেম খেলেই মিলিয়ন পাউন্ড আয় করতে সক্ষম হচ্ছে মানুষ। আর তাই এখন বাইরের দেশের অনেকেই নিজেদের ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে আগ্রহী গেমিং পেশাকে। আর তাছাড়াও অনলাইনে গেম খেলে শুধু যে অনলাইনে ইনকাম করা যায় এমনটা নয়।

বছরে এমন অনেক বড় বড় গেমিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় যেখানে অংশগ্রহণ করে মাত্র কয়েক দিনের মধ্যেই মাথা নষ্ট করা টাকা ইনকাম করা সম্ভব। এমনি একটি প্রতিযোগিতা হচ্ছে এপিক ডট ল্যান। তাহলে আর দেরি কেন, যদি আপনি নিজেকে সেই উপযুক্ত অবস্থান নিয়ে যেতে পারেন, তাহলে অবশ্যই আপনার জন্য আশীর্বাদ স্বরূপ হয়ে দেখা দিবে গেমিং ইনকাম  মাধ্যমটি। তবে মাথায় রাখবেন এর জন্য অবশ্যই আপনাকে ক্রিয়েটিভ মাইন্ডের হতে হবে। কেননা এই প্লাটফর্মে এমন অনেক দক্ষ  গেমার রয়েছে যারা অনেক বেশি ক্রিয়েটিভ মাইন্ডের এবং বুদ্ধিমান। শুধু শুধু শখের বসে মূলত এই মাধ্যমকে ইনকামের একমাত্র রাস্তা মনে করাটা শুধুই বোকামি আর কিছুই নয়। তবে কনফিডেন্স থাকলে আপনি এই মাধ্যম কে কেন্দ্র করেও তাকাতে পারেন ভবিষ্যতের জন্য।

Read More

Hosting Partner