রোমানিয়া ভিসার দাম

রোমানিয়া ভিসার দাম কত – রোমানিয়া বেতন কেমন

ন্যাটোর সদস্য রোমানিয়া রোমানিয়া দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের একটি রাষ্ট্র।  ইউরোপে যাওয়া প্রতিটি প্রবেশের জন্য স্বপ্নের মত। প্রায় সকল প্রবাসী ইউরোপে যেতে চায়। কেননা ইউরোপের দেশগুলোর অর্থনৈতিক দিক দিয়ে উন্নত। যার ফলে ইউরোপে গেলে অল্প সময়ের মধ্যে অনেক অর্থ উপার্জন করা যায়। আর যেহেতু প্রবাসীদের স্বপ্ন প্রচুর অর্থ উপার্জন করা তাই ইউরোপ কান্ট্রি তাদের প্রথম পছন্দ।

তবে ইউরোপ কান্ট্রি তে যাওয়া খুব কঠিন। কেননা ইউরোপ কান্ট্রি ভিসা সহজে পাওয়া যায়। তবে রোমানিয়া সরকার বিভিন্ন দেশ থেকে জনবল নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। আর প্রায় তিন বছর যাবত বাংলাদেশ থেকে কিছু কিছু জনশক্তি তারা নিচ্ছে। যদিও ইউরোপে যেতে খরচ বেশি হয় কিন্তু বেতনের পরিমাণ অনেক ভালো থাকে।

রোমানিয়া যাওয়ার পূর্বে আমাদের জানা উচিত রোমানিয়া ভিসার দাম কত, রোমানিয়া বেতন কেমন ও কাজের সুবিধা কেমন। তাছাড়া এর ভিসা প্রসেসিং সম্পর্কে জানা থাকা দরকার। আজকের এই পোস্টে আমি রোমানিয়া ভিসার দাম কত, বেতন কেমন হবে এবং কিভাবে ভিসা প্রসেসিং করতে হয় সবকিছু নিয়ে আলোচনা করেছি।

রোমানিয়া ভিসার দাম কত

১ জানুয়ারি, ২০০৭ থেকে রোমানিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের পূর্ণাঙ্গ সদস্য । রোমানিয়া হল ইউরোপীয় ইউনিয়নের নবম বৃহত্তম আয়াতনের দেশ ।এর আয়াতন হল ২৩৮.৪০০ বর্গ কিলোমিটার। রোমানিয়ার জনসংখ্যার ১৯ মিলিয়ন এর উপর । তাছাড়া রোমানিয়া অর্থনৈতিক দিক থেকে খুবই উন্নত। দেশটির অবকাঠামো নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় জনবল।

যার কারণে বিভিন্ন দেশ থেকে জনবল নিয়োগ ঘোষণা দিয়েছে। এমনকি অসংখ্য জনবল তারা অলরেডি নিয়ে নিয়েছে। তবে এ বছর তারা প্রায় 5 লক্ষ জনগণের কথা বলেছে। রোমানিয়া যাওয়ার জন্য খরচের পরিমাণ একটু বেশি হয়। কেননা ইউরোপ কান্ট্রি তে ভিসা প্রসেসিং অনেক কষ্টকর হয়ে থাকে। যার কারণে খরচের পরিমাণ বেশি।

রোমানিয়া ভিসার দাম পড়বে 7 থেকে 9 লক্ষ টাকা। এখানে আপনার কাজের ধরন অনুযায়ী ভিসার দাম কমতে পারে। তবে বর্তমানে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা যতগুলো মানুষ রোমানিয়া গেছে দালালরা তাদের কাছ থেকে 7 লক্ষ থেকে 8 লক্ষ টাকার মত নিয়েছে। এখানে তারা যার কাছে যেমন পেরেছে নিয়েছে।

রোমানিয়া বেতন কেমন

আপনার কাজের ধরন অনুযায়ী বেতনের পরিমাণ নির্ধারণ করা হবে। আপনি যদি ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় রোমানিয়া যান সেক্ষেত্রে আপনার বেতন পড়বে 50 থেকে 80 হাজার টাকার মধ্যে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে এর থেকে বেশি অথবা কম পড়তে পারে। আপনি যদি শিক্ষিত হয়ে থাকেন। সে ক্ষেত্রে আপনার সার্টিফিকেট প্রদর্শন করে উন্নত কাজ নিতে পারবেন।

তখন আপনার বেতনের পরিমাণ অনেক বেশি হবে। সেক্ষেত্রে আপনি এক লক্ষ টাকার উপরে উপার্জন করতে পারবেন। আর প্রতিটা দেশের লেখাপড়ার মূল্য অন্যরকম। আপনি যদি ভালো ইংরেজি পারেন তবে সেক্ষেত্রে আপনার বেতন 2 লক্ষ টাকার উপর হবে।

রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে

আপনি যদি ইউরোপের অন্যতম দেশ রোমানিয়া যেতে চান তাহলে আপনার খরচ হবে সাত থেকে আট লক্ষ টাকা। তবে মনে রাখবেন যেহেতু আপনি ইউরোপ কান্ট্রি তে যাচ্ছেন তবে আপনার বেতনের পরিমাণ বেশি হবে এবং যাওয়ার খরচের পরিমাণ বেশি হবে। ইউরোপ কান্ট্রি বলতে খরচ বেশি হয়।

তবে যদি আপনার কোন কাছের লোক থাকে সে যদি কোম্পানি থেকে কোন ভিসা প্রসেসিং করে দিতে পারে তখন আপনার খরচের পরিমাণ কম হবে। তখন কোম্পানির যাবে শুধু তাই দিলেই হবে। কিন্তু আপনি যদি দালাল ধরে রোমানিয়া চান সে ক্ষেত্রে আপনার খরচের পরিমাণ অবশ্যই বেশি হবে।

রোমানিয়া ভিজিট ভিসা

রোমানিয়াতে যে সকল প্রবাসী ভাইয়েরা রয়েছে তারা চাইলে তারা তাদের পরিবারের সদস্যদের রোমানিয়া নিয়ে যেতে পারবেন। এই ধরনের ভিসাকে ভিজিট ভিসা বলা হয়। আপনি চাইলে আপনার পরিবারের সবাইকে অথবা আপনার স্ত্রী সন্তানকে ভিজিট ভিসায় রোমানিয়া নিয়ে যেতে পারবেন। সরকারের পারমিট দিয়েছে।

তবে ভিজিট ভিসার মেয়াদ 30 দিন। আপনি মাত্র এক মাস তাদের ভিজিট ভিসায় নিয়ে যেতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে আপনাকে কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। আপনি যদি নিয়মের বাইরে কোন কাজ করেন সেক্ষেত্রে আপনাকে জরিমানা জেল খাটতে হবে।

রোমানিয়া স্টুডেন্ট ভিসা

অনেকেই পড়াশোনার জন্য বিভিন্ন দেশে গিয়ে থাকে। রোমানিয়া স্টুডেন্ট দের অন্যতম পছন্দের জায়গা। আর রোমানিয়া পড়াশোনার মান উন্নত। আপনি যদি স্টুডেন্ট ভিসায় রোমানিয়া যেতে চান তাহলে আপনি কম খরচে যেতে পারবেন। কারণ বিভিন্ন দেশ থেকে স্টুডেন্ট ভিসায় কম খরচে রোমানিয়া যাওয়া যায়।

আর স্টুডেন্ট ভিসার ক্ষেত্রে সরকার অনেক সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে। তাছাড়া রোমানিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে বিভিন্ন দেশের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য বিশেষ ছাড় দিয়ে থাকে। এখানে আপনি তিন ভাগের এক ভাগ খরচ করে রোমানিয়া ইউনিভার্সিটি তে পড়তে পারবেন।

Read More

অনলাইনে মালয়েশিয়া ভিসা চেক করার নিয়ম ও লিংক

ভালবাসার মানুষকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা বার্তা, এসএমএস, চিঠি ও মেসেজ

ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স টিকিট চেক করার নিয়ম, ভাড়া ও হেড অফিস