সুইডেনে বেতন কত ও সুইডেন কাজের ভিসা ২০২৩

ইউরোপের তৃতীয় বৃহত্তম এই দেশে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশিরা সবসময় মুখিয়ে থাকে। এ দেশে যাওয়ার প্রধান কারণ হচ্ছে এটি ইউরোপ কান্ট্রির একটি দেশ ও এর বেতনের পরিমাণ অনেক বেশি। এই দুইটি কারণে আমাদের দেশ থেকে সুইডেন যাওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি। আপনারা যারা সুইডেন যেতে ইচ্ছুক ও জানতে চান সুইডেনে কোন কাজের বেতন বেশি ও কোন কাজের চাহিদা বেশি তারা এই পোস্টে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

কেননা আজকের এই পোস্টে আমি তুলে ধরেছি সুইডেন কাজের ভিসা খরচ ও কিভাবে আবেদন করতে হয়। এ ছাড়া তুলে ধরেছি সুইডেনে কোন কাজের বেতন কত ও কোন কাজের চাহিদা বেশি। সুইডেন যাওয়ার পূর্বে যদি আপনার এ সকল বিষয়ে ভালো ধারণা থাকে তাহলে আপনার জন্য তা অনেক উপকার হবে। তাই চলুন নিচে থেকে সুইডেন সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

সুইডেন কাজের ভিসা

আমাদের দেশের অনেকেই কাজের ভিসা নিয়ে সুইডেন গিয়েছে। আবার অনেকেই কাজের ভিসা নিয়ে সুইডেন যেতে চাচ্ছেন। যারা কাজের ভিসা নিয়ে সুইডেন যেতে চাচ্ছেন তাদের জেনে রাখা জরুরি কাজের ভিসা নিয়ে সুইডেন যেতে কত টাকা লাগে। আর কিভাবে আপনি সহজেই সুইডেন কাজের ভিসা পাবেন। সুইডেন কাজের ভিসা পাওয়ার জন্য আপনার প্রয়োজন প্রথমত ইংরেজি ভাষার প্রতি দক্ষতা।

সুইডেন যাওয়ার জন্য আপনাকে প্রথমে ভালো দালালের শরণাপন্ন হতে হবে। আপনি যদি ভালো দালালের শরণাপন্ন হতে পারেন তাহলে সুইডেন ভিসা বের করার জন্য আপনার যাবতীয় কাজ সে করে দিবে। আর যদি আপনার পরিচিত কেউ সুইডেন থেকে থাকে তাহলে আপনার জন্য ভিসা পাওয়া আরো সহজ হবে। যদি আপনার পরিচিত কেউ সুইডেন থাকে তাহলে সুইডেন যেতে আপনার সব মিলিয়ে খরচ পড়বে ৭ লক্ষ টাকার মত।

আর যদি আপনার পরিচিত কেউ না থাকে, আপনি যদি দালালের মাধ্যমে সুইডেন যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে ১০ লক্ষ থেকে ১২ লক্ষ টাকা। তাই আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে প্রথমে পরিচিত কাউকে খুঁজে বের করা। আর যদি পরিচিত কেউ না থাকে তাহলে আপনাকে বাধ্য হয়েই দালালের শরণাপন্ন হতে হবে।

সুইডেনে বেতন কত

সুইডেনে সর্বনিম্ন বেতন ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। অর্থাৎ আপনি যদি সুইডেন গিয়ে নরমাল কোন কাজ করেন তাহলে আপনার বেতন হবে এই পরিমাণ। তাছাড়া আপনি যদি ড্রাইভিং ভিসা অথবা রেস্টুরেন্ট ভিসা নিয়ে যেতে পারেন তাহলে আপনার বেতন হবে ২ লক্ষ টাকার মত। এছাড়াও সুইডেনে প্লাম্বিং কাজের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। যদি আপনি এই কাজে পারদর্শিতা দেখাতে পারেন তাহলে আপনার বেতন হবে ৩ লক্ষ টাকা।

এছাড়াও সুইডেনে গ্লাস ফিটিং এর বেতন ২ লক্ষ টাকার উপরে। তাছাড়া যদি আপনি মদের বারে কাজ করেন তাহলে আপনার বেতন হবে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। তবে এখানে টিপস পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। টিপস দিয়ে আপনার বেতন দাঁড়াবে ২ লক্ষ টাকার উপরে। আশা করি বুঝতে পেরেছেন আপনার কাজের উপর আপনার বেতনের পরিমাণ নির্ভর করবে।

সুইডেন ওয়ার্ক পারমিট ভিসা

সুইডেনে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা পেতে হলে আপনাকে দক্ষ হতে হবে। অর্থাৎ আপনি যে কাজ নিয়ে সুইডেন যেতে যাচ্ছেন সেই কাজের প্রতি আপনার দক্ষতা সার্টিফিকেট থাকতে হবে। এছাড়াও আপনাকে ইংরেজ ভাষার প্রতি দক্ষ হতে হবে। সবকিছু যদি আপনার ঠিকঠাক থাকে তারা আপনাকে অতি সহজেই ওয়ার্ক পারমিট ভিসা দিয়ে দিবে। দক্ষতা ব্যতীত আপনাকে কখনোই তারা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা দিবে না।

তাই সুইডেন ওয়ার্ক পারমিট ভিসা পেতে আপনি প্রথমে যে কাজ নিয়ে সুইডেন যাবেন সেই কাজের প্রতি দক্ষতা অর্জন করুন। এরপর সুইডেন ওয়ার্ক পারমিট ভিসা আবেদন করুন। আবেদন করার পর তারা আপনার কাজের দক্ষতা সার্টিফিকেট চাবে। দক্ষতা সার্টিফিকেট দিতে পারলে তার আপনাকে অতি সহজেই ওয়ার্ক ভিসা দিয়ে দিবে। তবে বাংলাদেশ থেকে সুইডেন ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে যেতে চাইলে খরচের পরিমাণ একটু বেশি হয়।

সুইডেন ভিসা আবেদন

সুইডেন ভিসা আবেদনের জন্য প্রথমে আপনার যে সকল জিনিস প্রয়োজন তা হলো আপনার ইংরেজি ভাষার প্রতি দক্ষতা। দ্বিতীয়তঃ আপনি যে কাজ নিয়ে সুইডেন যেতে চাচ্ছেন তার প্রতি দক্ষতা। এরপর আপনার প্রয়োজন হবে একটি বৈধ ও অন্তত এক বছর মেয়াদ সম্পন্ন একটি পাসপোর্ট। ৪ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি। আপনার ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি ও জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি।

আপনার পিতা-মাতার ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি। যদি শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট। করনাটিকা সার্টিফিকেট। এসব কিছু হাতের নিকটে রেখে তারপর আপনাকে ভিসা আবেদন করতে হবে। আবেদনের পূর্বে ভালো করে দেখে নেবেন আপনার আবেদন ফরমে যাতে কোন প্রকার ভুল না হয়। যদি আবেদন ফরমে আপনি ভুল করেন তাহলে আপনার আবেদন রিজেক্ট আসবে। তাই অবশ্যই ভালো করে দেখে শুনে আবেদন করুন।

সুইডেনের মেয়ে

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের তুলনায় সুইডেনের মেয়েগুলো অত্যন্ত সুন্দরী হয়ে থাকে। এদেশের মেয়েদের চেহারায় এতটাই সুন্দর আপনি দেখলে সাথে সাথে তার প্রেমে পড়ে যাবেন। তাদের চেহারার লাবণ্য ও মায়াবী চেহারা আপনার মনকে আকৃষ্ট করতে বাধ্য। তারা খুবই আবেদনময়ী হয়ে থাকে। তারা লম্বা ও ফর্সা প্রকৃতির। তাদের চেহারা চীনা মেয়েদের মতো নিখুত।

সুইডেনের ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা

সুইডেনের ১ টাকা বাংলাদেশের ১০.২১  টাকা। তবে সময়ের সাথে এই টাকার পরিমাণ কম বেশি হয়ে থাকে। তবে খুব একটা কম বেশি হয় না। বড়জোর এক টাকা থেকে কিছু পয়সা কম বেশি হয়। তবে বর্তমানে সুইডেনের টাকার মান দিন দিন কিছু কিছু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

Read More  

Hosting Partner