কাতার ভিসা দাম কত ও বেতন কত

কাতার ভিসা দাম কত ও বেতন কত

আজকের এই পোস্টে আমি কাতার ভিসার দাম ও বেতন নিয়ে আলোচনা করব। আমাদের দেশ থেকে যে সকল দেশ শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে থাকে তার মধ্যে কাতার অন্যতম। আর মধ্যপাত্রের দেশগুলোর মধ্যে কাতার খুব দ্রুত উন্নত হয়েছে। এটা সকলেরই জানা ২০২২ বিশ্বকাপ কাতার অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বকাপের মতো আয়োজন করতে কাতারের বিশাল পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে হয়। আর এই কাজ সম্পন্ন করতে তাদের অনেক শ্রমিকের প্রয়োজন হয়। যার কারণে তারা আমাদের দেশ থেকে অসংখ্য জনবল নিয়োগ দেয়।

এছাড়াও কাতার প্রতিবছর আমাদের দেশ থেকে জনবল নিয়োগ দিচ্ছে। কাতার বিভিন্ন কাজের জন্য পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে শ্রমিক নিচ্ছে। তারা নির্মাণ শ্রমিক, ওয়েটার বয়, হোটেল বয়, ইলেকট্রিশিয়ান, ড্রাইভিং বিভিন্ন কাজের জন্য তারা ভিসা প্রদান করে থাকে। আপনি যদি চান তাহলে ভিসা নিয়ে কাতার যেতে পারেন। উপরে আমি যে সকল কাজের কথা তুলে ধরেছি এই সকল কাজে বেতনের পরিমাণ বেশি হয়ে থাকে।

কাতার দেওয়ার পূর্বে কাতারে কোন কাজের বেতন বেশি এবং কোন কাজের সুযোগ সুবিধা বেশি পাবেন তা জেনে রাখা ভালো। আপনার যদি পূর্ব থেকেই সেই কাজের প্রতি ধারনা থাকে তাহলে তো আপনার জন্য সহজ হয়ে যাবে। তাই আমি আজকের এই পোস্টটি কাতার কোন ভিসার দাম কত এবং কোন কাজে তারা সবচেয়ে বেশি বেতন দিয়ে থাকে তা তুলে ধরবো। তাই নিচের অংশ ভালো করে দেখুন।

কাতার ভিসার দাম কত

কাতার ভিসার দাম নির্ভর করে আপনি কি ভিসা নিয়ে কাতার যাবেন। কাজের ওপর কাতার ভিসার মূল্য নির্ভর করে। কাতার ভিসা বের করতে খুব একটা বেশি টাকা খরচ হয় না। তবে কাতার যেতে চাইলে অন্যান্য প্রাসঙ্গিক খরচ বেশি হয়ে থাকে। তবে যদি আপনার পরিচিত কেউ কাতার কোন কোম্পানি থেকে ভিসা প্রদান করে তাহলে আপনার খরচ আরো কমে যাবে। চলুন এবার কাতার ভিসার দাম দেখে নিই বিভিন্ন সেক্টরের।

কাতার লেবার ভিসা – কাতার লেবার ভিসা বলতে রাজমেস্ত্রি, রংমেস্ত্রি, পেন্টার, কার্পেন্ডার, কোম্পানি,ফেক্ট্ররী, অফিস এ সকল ভিসা বোঝায়। আপনি যদি এই সকল ভিসা নিয়ে কাতার যেতে চান তাহলে আপনার সবমিলিয়ে খরচ পড়বে ৩ লক্ষ থেকে ৪ লক্ষ টাকা।

কাতার ফ্রি ভিসা – আপনি যদি ফ্রি ভিসা নিয়ে কাতার যেতে চান সেক্ষেত্রে আপনার সব মিলিয়ে খরচ পড়বে ৫ লক্ষ থেকে ছয় ৬ টাকা। এখানে খরচ ভিসা প্রসেসিং থেকে শুরু করে বিমান ভাড়া সবকিছু ধরা হয়েছে।

কাতার ড্রাইভিং ভিসা – ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে কাতার যেতে চাইলে আপনার খরচ পড়বে সব মিলিয়ে ৫ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ টাকা। তবে ড্রাইভিং ভিসাতে সবচেয়ে বেতন বেশি হয়ে থাকে।

কাতার ইলেকট্রিক ভিসা – আপনি যদি ইলেকট্রিক কাজ ভাল পারেন তাহলে ইলেকট্রিক ভিসা নিয়ে কাতার যেতে পারেন। এখানে আপনার বেতনের পরিমাণ ভালো। কাতার ইলেকট্রিক ভিসা তে খরচ পড়বে ৪ লক্ষ থেকে৫ লক্ষ টাকা।

কাতার বেতন কত

কাতার ন্যূনতম মাসিক বেতন ২৫০০০ টাকা। আর কাতার সর্বোচ্চ মাসিক বেতন প্রবাসীদের জন্য ১ লক্ষ্ ৫০ হাজার টাকা। যদি আপনি ফোরম্যান এর দায়িত্ব পালন করতে পারেন তাহলে আপনার বেতন হবে ১ লক্ষ টাকার উপরে। আর যদি আপনি লেবারের কাজ করে থাকেন তাহলে আপনার বেতন হবে ২৫০০০ থেকে শুরু করে ৬০০০০ হাজার টাকা।

কাতার বেতন কেমন

কাতার বেতনের পরিমাণ নির্ভর করে কাজের উপর। আপনি যদি ড্রাইভিং কাজে কাতার গিয়ে থাকেন তাহলে আপনার বেতনের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি হবে। ড্রাইভিং কাজে আপনার বেতন হবে নূন্যতম ৭০০০০ টাকা। আবার আপনি যদি কোন তেল কোম্পানিতে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনার বেতন বেশি হবে। তাই কাতার যাওয়ার পূর্বে বেতের সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করে নিবেন।

কাতার ড্রাইভিং কাজের বেতন কত

কাতার ড্রাইভিং কাজের বেতন ৭০০০০ থেকে শুরু করে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। এখানে বেতনের পরিমাণ নির্ভর করবে আপনি কোন ধরনের গাড়ি চালাবেন তার ওপর। যদি আপনি লরি ভালো চালাতে পারেন তাহলে আপনার বেতন সবচেয়ে বেশি হবে। তাই সব ধরনের গাড়ি চালানোর দক্ষতা থাকলে আপনার বেতনের পরিমাণ বেশি হবে।

Read More