সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা - সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা বেতন কত

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা – সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা বেতন কত

সিঙ্গাপুরে যে সকল কাজের ভিসা রয়েছে তার মধ্যে ড্রাইভিং ভিসা অন্যতম। যারা সিঙ্গাপুর যেতে যাচ্ছেন তারা ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে সিঙ্গাপুর যেতে পারেন। কেননা সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসার চাহিদা রয়েছে এবং এর বেতন অনেক বেশি হয়ে থাকে অন্যান্য কাজের তুলনায়। তবে ড্রাইভিং ভিসায় সিঙ্গাপুর যেতে চাইলে আপনাকে দক্ষতা সম্পন্ন হতে হবে। ড্রাইভিং সম্পর্কে যদি আপনার ভালো ধারণা না থাকে তাহলে আপনি কখনোই সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা পাবেন না।

তাই আপনি যদি ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে সিঙ্গাপুর যেতে চান তবে অবশ্যই ড্রাইভিং সম্পর্কে আপনার ভালো দক্ষতা থাকতে হবে। কেননা সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা পাওয়ার পূর্বে আপনার পরীক্ষা নেওয়া হবে। যদি আপনি পরীক্ষায় পাস করেন তবে আপনি ড্রাইভিং ভিসা পাবেন। আর যদি আপনি পরীক্ষায় পাশ না করেন তাহলে কোনভাবেই ড্রাইভিং ভিসা পাবেন না। কেননা এখানে আমাদের দেশের মতো কোনো দুর্নীতি নেই। চলুন এবার সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

Table of Contents

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা

সিঙ্গাপুর যে সকল কাজের উদ্দেশ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে থাকে তার মধ্যে ড্রাইভিং ভিসা অন্যতম। বর্তমানে সিঙ্গাপুরে ড্রাইভিং ভিসাতে সবচেয়ে বেশি শ্রমিক নিয়োগ দিচ্ছে। আর ড্রাইভিং ভিসা তে বেতন বেশি থাকায় বেশিরভাগ মানুষ ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে সিঙ্গাপুর যেতে আগ্রহী। সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা পেতে হলে আপনার বয়স অবশ্যই ১৮ বছর থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে হতে হবে। এর বেশি হলে তারা আপনাকে ভিসা দিবে না।

তাছাড়া যদি আপনি ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে সিঙ্গাপুর যেতে চান তাহলে আপনার বিআরটিসি কর্তৃক ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকতে হবে। ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে আপনি ভিসা আবেদন করতে পারবেন না। তাছাড়া আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকলেও তারা আপনার পরীক্ষা নিয়ে নিবে। যদি আপনি সেই ড্রাইভিং পরীক্ষায় পাশ করেন তবে তারা আপনাকে ভিসা প্রদান করবে।

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসার দাম কত

আপনি যদি ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে সিঙ্গাপুর যেতে চান তাহলে আপনার সব মিলিয়ে খরচ হবে ৬ লক্ষ্ থেকে ৭ লক্ষ টাকা। এখানে খরচের পরিমাণ বিমান ভাড়া থেকে শুরু করে সব মিলিয়ে ধরা হয়েছে। বর্তমানে ডলার রেট অনুসারে সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসার দাম ধরা হয়েছে। তবে ডলারের দাম বৃদ্ধি পেলে আপনার খরচ আরো বেশি হবে। যদি আপনার পরিচিত কেউ সিঙ্গাপুর থাকে তবে সে ক্ষেত্রে আপনার খরচ কম হবে।

যদি আপনার পরিচিত কেউ সিঙ্গাপুর থাকে তাহলে আপনি যে কয় বছর সিঙ্গাপুর থাকবেন সেই অনুসারে প্রতি বছর এক মাসের বেতন আপনাকে সেই কোম্পানির মালিক কে দিতে হবে। আপনি যদি ১০ বছর থাকেন তাহলে ১০ মাসের বেতন তাদের দিতে হবে। এটাই হবে শুধু আপনার খরচ। সুতরাং বুঝতে পারছেন আপনার খরচ অনেক কমে যাবে।

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা বেতন কত

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা বেতন ৬০ হাজার থেকে শুরু করে ১ লক্ষ টাকা। এখানে আপনার বেতনের পরিমাণ নির্ভর করবে আপনার ড্রাইভিং দক্ষতার উপর এবং আপনি কোন গাড়ি চালাবেন তার ওপর। যদি আপনি ভালো লরি চালাতে পারেন তাহলে আপনার বেতন বেশি হবে। এছাড়াও প্রতি বছর আপনার বেতন বাড়ানো হবে যদি আপনার ড্রাইভিং দক্ষতা ভালো থাকে। ড্রাইভিং দক্ষতা ভালো থাকলে আপনি অনায়াসে ১ লক্ষ টাকা কামাতে পারবেন।

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং লাইসেন্স

আপনি যদি ড্রাইভিং ভিসায় সিঙ্গাপুর যেতে চান তাহলে বিআরটিসি কর্তৃক ড্রাইভিং লাইসেন্স লাগবে। বিআরটিসি কর্তৃক ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকলে আপনি সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং ভিসা আবেদন করতে পারবেন। আর না থাকলে আপনি ড্রাইভিং ভিসা আবেদন করতে পারবেন না। যদি আপনার ভিসা হয়ে যায় তবে সিঙ্গাপুর গিয়ে আপনি আরো একটি ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে সিঙ্গাপুর যাওয়ার পর সেখান থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে হবে।

যদি আপনি সেখানে গিয়ে ড্রাইভিং পরীক্ষা দিয়ে পাস করেন তাহলে সিঙ্গাপুরের অরজিনাল ড্রাইভিং লাইসেন্স পেয়ে যাবেন। যদি আপনার সেই লাইসেন্স থাকে তাহলে আপনার জন্য আরো ভালো হবে। কেননা সিঙ্গাপুরের অরজিনাল ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকলে আপনার বেতনের পরিমাণ অনেক বেশি হবে। আর সেই লাইসেন্স হবে আপনার জন্য ইন্টারন্যাশনাল লাইসেন্স।

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং এ গতিসীমা কত

সিঙ্গাপুর ড্রাইভিং এ সাধারণত গতিসেমা ৮০ থেকে ৯০ কিলোমিটার পার ঘন্টা। তবে স্থান বেধে গতিসীমার পরিবর্তন রয়েছে। স্কুল কলেজ ও ধর্মীয় উপাসনালয়ের জায়গায় আপনার গতিসীমা ৪০ এর মধ্যে থাকতে হবে। আবার কিছু কিছু এলাকায় গতিসীমা ৫০ এর বেশি যাওয়া যায় না। সুতরাং বুঝতেই পারছেন এখানে গতিসেমা স্থান বেধে পরিবর্তন হয়ে থাকে। তবে সর্বোচ্চ গতি সীমা ৯০ কিলোমিটার পার ঘন্টা।

Read More