রোমানিয়া বেতন কেমন ২০২৩

ইউরোপের বৃহত্তম দেশ গুলোর মধ্যে রোমানিয়া অন্যতম। রোমানিয়া দক্ষিণ পূর্ব ইউরোপের দেশ। ইউরোপ কান্ট্রি তে যাওয়ার আগ্রহ প্রায় সকল মানুষের রয়েছে। কেননা ইউরোপের দেশগুলো স্বপ্নের মত হয়ে থাকে। তবে বাংলা ভাষাভাষী মানুষের ইউরোপের দেশে যাওয়া অনেক কঠিন ব্যাপার। কিন্তু এখন বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার শ্রমিক নিয়োগ দিচ্ছে রোমানিয়া। তাই বাংলাদেশ থেকে এখন রোমানিয়া দেওয়ার সহজ হয়েছে। আপনি যদি তাদের উদ্দেশ্যে রোমানিয়া যেতে চান তাহলে রোমানিয়া যেতে পারবেন।

রোমানিয়া যাওয়ার পূর্বে রোমানিয়ার সকল তথ্য আপনার জানা প্রয়োজন। আপনি যদি রোমানিয়া কাজের উদ্দেশ্যে যান তাহলে রোমানিয়া বেতন কেমন, রোমানিয়া ভিসার খরচ কত, কিভাবে সহজে রোমানিয়ার ভিসা পাওয়া যায়, রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে সমস্ত বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানা আবশ্যক। আর আজকের এই পোস্টে আমি এ সকল বিষয় বিস্তারিতভাবে তুলে ধরব, যাতে আপনি রোমানের সম্পর্কে একটি পরিপূর্ণ ধারণা পেতে পারেন।

রোমানিয়া কাজের ভিসা

ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় প্রতিবছর হাজার হাজার বাঙালি রোমানিয়া কাজের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমাচ্ছে। কেননা গত দুই বছর যাবত রোমানিয়া সরকার আমাদের দেশ থেকে শ্রমশক্তি নিয়োগ দিয়েছে। আর রোমানিয়া কাজের সুযোগ সুবিধা থাকায় ও বেতন ভালো থাকায় বেশিরভাগ মানুষ রোমানিয়া যেতে আগ্রহী। তবে রোমানিয়া কাজের ভিসা খরচ ও যেতে একটু বেশি টাকা লাগে। তবে বেতন ভালো হয় যার কারণে মানুষ আগ্রহী বেশি। 

আপনি কি রোমানিয়া যেতে চাচ্ছেন? তাহলে অবশ্যই আপনাকে এর ভিসা প্রসেসিং সম্পর্কে জানতে হবে। শুধু ভিসা প্রসেসিং না এর বেতন কত, ভিসা খরচ কত, যেতে কত টাকা লাগে সমস্ত বিষয় সম্পর্কে অবগত হওয়া জরুরী। কেননা আপনি রোমানিয়া যাচ্ছেন টাকা কামানোর উদ্দেশ্যে। এই কারণে এর বেতনের পরিমাণ জানা আবশ্যক।

রোমানিয়া বেতন কেমন

প্রতিটি দেশেই বেতন নির্ভর করে কাজের উপর। আপনি কোন কাজ করবেন তার ওপর আপনার বেতন নির্ধারণ করে দেয়া হবে। যদি আপনার মেকানিক কাজে দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি প্রায় ১০০০ ডলার উপার্জন করতে পারবেন। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১ লক্ষ টাকা। আর যদি আপনি সাধারণ শ্রমিক হিসেবে রোমানিয়া যেতে চান তাহলে আপনার বেতন পড়বে ৫০০ ডলার অথবা এর কিছু বেশি।

আমেরিকান 500 ডলার সমান বাংলাদেশি টাকায় ৫০ হাজার টাকা। আর আপনি যদি ড্রাইভিং ও রেষ্টুরেন্ট ভিসায় রোমানিয়া যান তাহলে আপনার বেতন পড়বে ৭০ হাজার থেকে ৮০ হাজার টাকা। তবে মনে রাখবে রোমানিয়া সর্বনিম্ন বেতন ৫০  হাজার টাকা। তবে রোমানিয়ার যাওয়া খরচ একটু বেশি হয়ে থাকে।

এছাড়াও আপনার দক্ষতা যদি ভাল থাকে যেমন আপনি কম্পিউটার সম্পর্কে ভাল বুঝেন তাহলে আপনার বেতন পড়বে আরো বেশি। কম্পিউটার সম্পর্কে ভালো জানাশোনা থাকলে আপনার বেতন হবে প্রায় ১৫০০ ডলার থেকে ২০০০ ডলার। যা বাংলাদেশী টাকায় ১৫০০০০ থেকে ২০০০০০ টাকা। সুতরাং বুঝতেই পারছেন বাংলাদেশী টাকা অনুসারে এই বেতন স্বপ্নের মত।

রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে

আপনি যদি কাজের ভিসায় রোমানিয়া যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে ৬ লক্ষ থেকে ৭ লক্ষ টাকা। তবে ভিসার ধরন অনুসারে খরচের পরিমাণ কমবেশি হবে। যদি আপনি মেকানিকের কাজে রোমানিয়া যেতে চান তাহলে আপনার খরচ ৪০ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা বেশি খরচ হবে। আর যদি আপনি নির্মাণ শ্রমিক অথবা রেস্টুরেন্ট এর ভিসায় যেতে চান তাহলে আপনার খরচ পড়বে ৭ লক্ষ টাকা।

এছাড়াও সময় সাপেক্ষে খরচের পরিমাণ কমবেশি হতে পারে। কেননা দিন যায় জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যায়। তাই আমি যে টাকার পরিমাণ তুলে ধরছি এটা জাস্ট ধারণা মাত্র। তবে এরচেয়ে খুব একটা কম বেশী হবেনা। বড়জোর বিশ-ত্রিশ হাজার টাকা কম বেশি হতে পারে।

রোমানিয়া ভিসা খরচ

আপনি যদি রোমানিয়া যেতে চান তাহলে আপনার ভিসা খরচ পড়বে ৬ লক্ষ টাকা। এটা অনেকেরই জানা ইউরোপ কান্ট্রি তে যেতে একটু বেশি টাকা লাগে অন্যান্য দেশের তুলনায়। অন্যান্য দেশে যেখানে .২ লক্ষ থেকে ৩ লক্ষ টাকা খরচ হয়। আবার কোন কোন দেশে ৪ লক্ষ থেকে ৫ লক্ষ টাকা খরচ হয়। রোমানিয়া যেতে একটু বেশি টাকা খরচ হয়। এর মূল কারণ ইউরোপ কান্ট্রি।

আশাকরি রোমানিয়া সম্পর্কে আপনি বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। কেননা এখানে আলী রোমানিয়া ভিসা খরচ, রোমানিয়া যেতে কত টাকা লাগে, রোমানিয়া কাজের ভিসা, রোমানিয়া বেতন কেমন সমস্ত জিনিস তুলে ধরেছি যা আপনার জানা প্রয়োজন।

আরো দেখুন

কানাডা যেতে কত পয়েন্ট লাগে – কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা খরচ

কানাডা স্টুডেন্ট ভিসা যোগ্যতা ও স্টুডেন্ট ভিসা খরচ

সৌদি আরব কোম্পানি ভিসা

সৌদি আরবের কোম্পানির নাম – কোম্পানির কাজের ধরন

Hosting Partner